পটুয়াখালীতে জমি জমি বিরোধের জের ধরে বিদ্যালয়ের কর্মচারীকে কুপিয়ে এবং পিটিয়ে গুরুতর জখম করেছে প্রতিপক্ষরা

0
409

পটুয়াখালী প্রতিবেদকঃ পটুয়াখালী সদর উপজেলার খলিসা খালী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের চতুর্থ শ্রেণীর কর্মচারী মোহাম্মদ ইউনুস খান গত ১মে ইং তারিখে আনুমানিক সন্ধ্যা ৬:৩০ ঘটিকা সময় খলিসা খালির কিছু দূর্বিত্তরা তাকে খুনের উদ্দেশ্যে লোহার রড এবং ধারালো দা দিয়ে কুপিয়ে এবং পিটিয়ে গুরুতর জখম করে। এসময় তার পরিবারের স্ত্রী ও মেয়েকে চরম মারধর করে। মূমর্ষ অবস’ায় ইউনুস খান ও তার মেয়ে শিউলী বেগমকে কতিপয় লোকজন পটুয়াখালী সদর হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করে । সদর হাসপাতালে কর্তব্যরত চিকিৎসক ইউনুস খানের অবস’া আশংকাজনক দেখে তাকে ঢাকা জাতীয় অর্থপেটিকস হাসপাতাল প্রতিষ্ঠান (পঙ্গু) এ রেফার করে। বর্তমানে ইউনুস খান জাতীয় অর্থ পেটিক হাসপাতাল ও পুনর্বাসন প্রতিষ্ঠান (পঙ্গু) এ সারজিকাল ওয়ার্ডে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে। এমতাবস’ায় ইউনুস খানের পরিবারের সকল সদস্যরা চিন্তিত ও উদ্ধিগ্ন। জাতীয় অর্থপেটিক হাসপাতাল ও পুনর্বাসন প্রতিষ্ঠান (পঙ্গু)এর বিজ্ঞ চিকিৎসক ইউনুস খানের অশঙ্কাজনক বলে মনে করে । যেকোনো সময় ইউনুস খানের বড় দূর্ঘটনা ঘটে যেতে পাড়ে। এ পর্যায়ে ইউনুস খানের পরিবারের সকল সদস্যরা প্রশাসনের সুষ্ঠ বিচার দাবি করছে, এবং এলাকাবাসীর কাছে দোয়া চাচ্ছে।
এমতাবস’ায় ইউনুচ খানের ছেলে মোঃ শহিদ খান বাদী হয়ে মোঃ আল আমিন খা (২৮), হাবিব খাঁ (৪৪), মজিবর খাঁ (৪৮), হাকিম খাঁ (৩৫), জুলহাস খাঁ(২০), আবদুল মজিদ খাঁ(৬৪), হারুনমোল্লা(৪০)কে আসামী করে পটুয়াখালী সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট কোর্টে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।
মামলা দায়ের করার পরিপ্রেক্ষিতে ইউনুস খানের পরিবারের সদস্যরা নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে। ইউনুস খানের পরিবারের সদস্যরা জীবনের নিরাপত্তার জন্য একান্তভাকে প্রশাসনের সহযোগিতা কামনা করছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here