পটুয়াখালীতে ৬ বছরের শিশু ধর্ষন ঘটনায় মামলা

0
48

স্টাফ রিপোর্টারঃ পটুয়াখালীতে ৬ বছরের শিশু ধর্ষনের অভিযোগে লম্ফট ধলু সরদার (৫০) কে আসামী করে সদর থানায় একটি মামলা হয়েছে। মামলা নং-১৫, তারিখঃ ১৯.০৬.২০ইং।
ভিকটিম শিশুটির চাচা মোঃ কাওসার হাওলাদার কর্তৃক দায়েরকৃত মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরনে জানাগেছে, শিশুটির বাবা ব্রæনাই প্রবাসী। প্রবাসীর স্ত্রী মোসাঃ কাজল দুই শিশু ছেলে ও মেয়ে নিয়ে সদর উপজেলার কমলাপুর ইউনিয়নের দক্ষিন ধরান্দী গ্রামের বাড়িতে থাকেন। পাশের বাড়ির মৃত হাকিম আলী সরদারের ছেলে লম্পট ধলু সরদার (৫০) ব্রæনাই প্রবাসীর স্ত্রী কাজলের উপর কু-নজর দিতো। বিষয়টি তার স্বজনদের জানালে তারা লম্ফট ধলুকে সাবধান করেন। এ আক্রোশে ঘটনার দিন ১৮ জুন বৃহষ্পতিবার সকালে মা কাজল তার স্বামীর পাঠানো টাকা তুলতে খারিজ্জমা সোনালী ব্যাংকে যায়। এ সুযোগে ধলু সরদার ৬ বছরের শিশু কন্যা (রাবেয়া-৬) কে ফুসলাইয়া ও ভুল বুঝাইয়া পাশে কাঠের লাকরির ঘরের মধ্যে নিয়ে শিশুটির মুখ চেপে ধরে ধর্ষন করে। এতে তার যৌনাঙ্গ ক্ষত হয়ে রক্তক্ষরন হয়। এ সময় রাবেয়া বেগম খারিজ্জমা থেকে বাড়ি ফিরে এসে লাকরির ঘরে শিশু কন্যাকে ধলুর অনৈতিক কর্মকান্ড দেখে ডাক চিৎকার দিলে লম্পট ধলু পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে শিশু কন্যার চাচা মোঃ কাওসার হাওলাদার বাড়িতে এসে ভাতিজির অবস্থা গুরুতর দেখে তাকে চিকিৎসার জন্য ২৫০ শয্যা বিশিস্ট পটুয়াখালীর উদ্দেশ্যে রওয়ানা পথে ধলুর প্রভাবশালী মহলের বাধার মুখে পড়ে। পরে স্থানীয়দের সহায়তায় সন্ধ্যা ৭.৩০ মিনিট সময় ভিকটিম (রাবেয়া) কে হাসপাতালের জরুরী বিভাগে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার শিশুটিকে ভর্তি করে এবং চিকিৎসা প্রদান করেন। বর্তমানে সে হাসপাতালে চিতিকৎসারত আছে। ভিকটিম রাবেয়া ধরান্দী নূরানী ক্যাডেট মাদ্রাসার প্লে-শ্রেনীর ছাত্রী। এ ঘটনায় ভিকটিমের চাচা কাওসার হাওলাদার ধর্ষক ধলু সরদারকে আসামী করে উক্ত মামলা দায়ের করেন।
পটুয়াখালী সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আখতার মোরশেদ জানান, এ ঘটনায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ২০০০ (সংশোধনী ২০০৩) এর ৯(১) ধারায় মামলা হয়েছে। আসামীকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here